পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ , সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল
শিরোনাম :
Logo বগুড়ায় প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা Logo কুমিল্লায় এনজিও সংস্থা দিয়া’র কর্মীদের প্রশিক্ষণ সভা অনুষ্ঠিত। Logo বগুড়া আদমদীঘিতে প্রয়াত সাত সাংবাদিক স্বরণে সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo অতিরিক্ত ডিআইজি হারালেন মেয়েকে স্ত্রীর মৃত্যুর পর বিয়ে করেননি, মেয়ের শোক সইবেন কী করে? Logo জেলা প্রশাসক ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২৪ ইং ফাইনালে লালমনিরহাট পৌরসভা বিজয়ী Logo বগড়া আদমদীঘিতে কৃষকরা ব্যস্ত সময় পার করছে বোরো বীজ রোপণে Logo আধুনিক সেনাবাহিনী গড়ে তুলতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী Logo বেইলি রোডে আগুন: স্ত্রী-সন্তানসহ কাস্টমস কর্মকর্তার মৃত্যু Logo বিপিএলের শিরোপা গেলো বরিশালের ঘরে Logo বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) সেবায় ভূষিত হয়েছেন আদমদিঘীর সন্তান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম।

স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীর কাছে চাঁদা দাবি

ডেস্ক: জীবিকার তাগিদে দুই বছরের শিশু কন্যাকে বাড়িতে মায়ের কাছে রেখে ঢাকায় রওয়ানা হয়েছিলেন ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার দুলারহাট থানার নীলকমল ৬নং ওয়ার্ড নীলকমল গ্রামের শাহজল হক দালালের মেয়ে মোসাম্মদ নুপুর বেগম ও আব্দুল্লাহ দম্পতি। মঙ্গলবার দুপুরে চরফ্যাশন থেকে ঘোষেরহাটের লঞ্চযোগে রওনা দিয়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে লালমোহনের দেবীরচর ঘাটে পৌঁছান তারা।

এরই মধ্যে বাড়ি থেকে শিশু কন্যার কান্নাকাটির সংবাদ আসলে দেবীরচরে ঘাটে জরুরিভাবে নেমে যান এ দম্পতি। তারপর তাদের উপর চলে অপ্রত্যাশিত দুর্যোগ। স্থানীয় কতিপয় বখাটে তাদের আটকে ফেলে। স্বামীকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় দফায় দফায় মারধর করা হয় আব্দুল্লাহকে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার লালমোহন থানায় এজাহার দাখিল করলে মামলা গ্রহণ করা হয় বলে জানান ওসি (তদন্ত) এনায়েত হোসেন।

নুপুর বেগম জানান, দেবীরচর থেকে অটোরিকশাযোগে সন্ধ্যার পর লালমোহন রওয়ানা দিলে পথিমধ্যে সেখানকার সুজন ও নাইমসহ কয়েকজন মিলে অটোরিকশা থেকে জোরপূর্বক তাদের নামিয়ে নেয়। তার স্বামী আব্দুল্লাহকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় দফায় দফায় মারধর করা হয় তার স্বামীকে। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা নুপুর বেগমের কানের দুল, আংটি, গলার চেইন, ভ্যানিটি ব্যাগে থাকা নগদ ত্রিশ হাজার টাকা ও স্বামীর দুটি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

এরপরও বাড়ি থেকে আরও টাকা এনে দিতে বললে বিকাশে দশ হাজার টাকা এনে দেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। পরে তাদেরকে ছেড়ে দিয়ে একটি মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় হামলাকারীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভুক্তভোগী নুপুর বেগম বাদি হয়ে লালমোহন থানায় এজাহার দাখিল করেন।

লালমোহন থানার ওসি (তদন্ত) এনায়েত হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়ে মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে একজন অফিসার তদন্তে গেছেন। তদন্ত অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

বগুড়ায় প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীর কাছে চাঁদা দাবি

আপডেট টাইম : ০৮:৫২:২১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ডেস্ক: জীবিকার তাগিদে দুই বছরের শিশু কন্যাকে বাড়িতে মায়ের কাছে রেখে ঢাকায় রওয়ানা হয়েছিলেন ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার দুলারহাট থানার নীলকমল ৬নং ওয়ার্ড নীলকমল গ্রামের শাহজল হক দালালের মেয়ে মোসাম্মদ নুপুর বেগম ও আব্দুল্লাহ দম্পতি। মঙ্গলবার দুপুরে চরফ্যাশন থেকে ঘোষেরহাটের লঞ্চযোগে রওনা দিয়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে লালমোহনের দেবীরচর ঘাটে পৌঁছান তারা।

এরই মধ্যে বাড়ি থেকে শিশু কন্যার কান্নাকাটির সংবাদ আসলে দেবীরচরে ঘাটে জরুরিভাবে নেমে যান এ দম্পতি। তারপর তাদের উপর চলে অপ্রত্যাশিত দুর্যোগ। স্থানীয় কতিপয় বখাটে তাদের আটকে ফেলে। স্বামীকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় দফায় দফায় মারধর করা হয় আব্দুল্লাহকে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার লালমোহন থানায় এজাহার দাখিল করলে মামলা গ্রহণ করা হয় বলে জানান ওসি (তদন্ত) এনায়েত হোসেন।

নুপুর বেগম জানান, দেবীরচর থেকে অটোরিকশাযোগে সন্ধ্যার পর লালমোহন রওয়ানা দিলে পথিমধ্যে সেখানকার সুজন ও নাইমসহ কয়েকজন মিলে অটোরিকশা থেকে জোরপূর্বক তাদের নামিয়ে নেয়। তার স্বামী আব্দুল্লাহকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় দফায় দফায় মারধর করা হয় তার স্বামীকে। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা নুপুর বেগমের কানের দুল, আংটি, গলার চেইন, ভ্যানিটি ব্যাগে থাকা নগদ ত্রিশ হাজার টাকা ও স্বামীর দুটি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।

এরপরও বাড়ি থেকে আরও টাকা এনে দিতে বললে বিকাশে দশ হাজার টাকা এনে দেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। পরে তাদেরকে ছেড়ে দিয়ে একটি মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় হামলাকারীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভুক্তভোগী নুপুর বেগম বাদি হয়ে লালমোহন থানায় এজাহার দাখিল করেন।

লালমোহন থানার ওসি (তদন্ত) এনায়েত হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়ে মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে একজন অফিসার তদন্তে গেছেন। তদন্ত অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।