পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল
শিরোনাম :
Logo ময়মনসিংহ বিআরটিএ টাকা ছাড়া কাজ করেন না সহকারী পরিচালক এস এম ওয়াজেদ, সেবাগ্রহীতাদের অসন্তোষ Logo বগুড়ায় দুর্বৃত্তের ছোড়া গুলিতে গৃহবধু আহত Logo বাউফলে নির্বাচনী সহিংসতা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাংচুর, ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম।  Logo সান্তাহারে ট্রেনে পৃথক স্থানে কাটা পড়ে দুই যুবকের মৃত্য Logo বগুড় সান্তাহারে এক স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা Logo জন্মগত জটিল রোগে ভুগছেন শিশু কাওসার, অর্থের অভাবে থেমে আছে চিকিৎসা। Logo বিআরটিএ’র পরিদর্শক আরিফুলের অবৈধ সম্পদের পাহার, দুদকের মামলা, এখনো বহাল তবিয়তে Logo বেবিচকের ধনকুবের খ্যাত শত কোটি টাকার মালিক সুব্রত চন্দ্র দে। দুদকে অভিযোগে Logo বিআরটিএ’র পরিদর্শক আরিফুলের অবৈধ সম্পদের পাহার, দুদকের মামলা, এখনো বহাল তবিয়তে Logo এতদিন কি তাহলে বিআরটিএ ঘুমিয়ে ছিল? প্রশ্ন কাদেরের
দালালের হাতে লাঞ্ছিত মোটরযান পরিদর্শক

ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে অনিয়ম ঝিনাইদহ বিআরটিএ এডি আতিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে

ডেস্ক : আপাদমস্তক অনিয়ম দুর্নীতিতে জড়িয়ে গেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বিআরটিএর ঝিনাইদহ সার্কেলের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) আতিয়ার রহমান। ডজন খানেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে । সব কিছু জেনেও নিরবতা পালন করছে কর্তৃপক্ষ। টাকার বিনিময়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে জাল জালিয়াতিসহ গ্রাহক সেবায় ঘুষ লেনদেন চলে প্রকাশে। দালাল নিয়ন্ত্রণ, অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ যেন পিছু ছাড়ছে না তার। বিআরটিএর এই সার্কেলে এবার দালালদের সাথে বাকবিতন্ডা জড়িয়ে নিজ কার্যালয়ে লাঞ্চিত হয়েছে মোটরযান পরিদর্শক তারিক হাসান।

বৃহস্পতিবার ৪ এপ্রিল দুপুরে বিআরটিএ কার্যালয়ে নিজ কক্ষে মোটরযান পরিদর্শক তারিক হাসানকে লাঞ্ছিত করেন ওলিয়ার নামক এক দালাল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে কর্মস্থল বিআরটিএ অফিসে নিজের কক্ষে অবস্থান করছিলেন মোটরযান পরিদর্শক তারিক হাসান। এ সময় ওলিয়ার রহমান নামের এক দালাল তারিক হাসানের কক্ষে ঢুকে গালি-গালাজ শুরু করেন। পরে তারিক হাসান তাকে অফিস থেকে বের হতে বললে ওলিয়ার চড়াও হয়। এক পর্যায়ে তারিক হাসানকে ধাক্কা দেয়। বিষয়টি দেখে অফিসের অন্যরা এগিয়ে এলে তিনি পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে তারিক হাসান বলেন, দালাল ওলিয়ারকে অফিসের বাইরে যেতে বলায় তিনি আমার ওপর চড়াও হয় এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মারতে তেড়ে আসে। এছাড়াও আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়। তিনি আরও বলেন, আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। যে কোনো সময় আমার ওপর হামলা হতে পারে।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) আতিয়ার রহমান বলেন, কিছু দালাল চক্র অফিসের মধ্যে প্রবেশ করে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসক মহোদয়কে বিষয়টি অবগত করেছি। এ ধরনের ঘটনা এড়াতে অনতিবিলম্বে দালালচক্রের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Tag :
জনপ্রিয় সংবাদ

ময়মনসিংহ বিআরটিএ টাকা ছাড়া কাজ করেন না সহকারী পরিচালক এস এম ওয়াজেদ, সেবাগ্রহীতাদের অসন্তোষ

দালালের হাতে লাঞ্ছিত মোটরযান পরিদর্শক

ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে অনিয়ম ঝিনাইদহ বিআরটিএ এডি আতিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে

আপডেট টাইম : ০৮:০৯:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪

ডেস্ক : আপাদমস্তক অনিয়ম দুর্নীতিতে জড়িয়ে গেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বিআরটিএর ঝিনাইদহ সার্কেলের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) আতিয়ার রহমান। ডজন খানেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে । সব কিছু জেনেও নিরবতা পালন করছে কর্তৃপক্ষ। টাকার বিনিময়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে জাল জালিয়াতিসহ গ্রাহক সেবায় ঘুষ লেনদেন চলে প্রকাশে। দালাল নিয়ন্ত্রণ, অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ যেন পিছু ছাড়ছে না তার। বিআরটিএর এই সার্কেলে এবার দালালদের সাথে বাকবিতন্ডা জড়িয়ে নিজ কার্যালয়ে লাঞ্চিত হয়েছে মোটরযান পরিদর্শক তারিক হাসান।

বৃহস্পতিবার ৪ এপ্রিল দুপুরে বিআরটিএ কার্যালয়ে নিজ কক্ষে মোটরযান পরিদর্শক তারিক হাসানকে লাঞ্ছিত করেন ওলিয়ার নামক এক দালাল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে কর্মস্থল বিআরটিএ অফিসে নিজের কক্ষে অবস্থান করছিলেন মোটরযান পরিদর্শক তারিক হাসান। এ সময় ওলিয়ার রহমান নামের এক দালাল তারিক হাসানের কক্ষে ঢুকে গালি-গালাজ শুরু করেন। পরে তারিক হাসান তাকে অফিস থেকে বের হতে বললে ওলিয়ার চড়াও হয়। এক পর্যায়ে তারিক হাসানকে ধাক্কা দেয়। বিষয়টি দেখে অফিসের অন্যরা এগিয়ে এলে তিনি পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে তারিক হাসান বলেন, দালাল ওলিয়ারকে অফিসের বাইরে যেতে বলায় তিনি আমার ওপর চড়াও হয় এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মারতে তেড়ে আসে। এছাড়াও আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়। তিনি আরও বলেন, আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। যে কোনো সময় আমার ওপর হামলা হতে পারে।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) আতিয়ার রহমান বলেন, কিছু দালাল চক্র অফিসের মধ্যে প্রবেশ করে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসক মহোদয়কে বিষয়টি অবগত করেছি। এ ধরনের ঘটনা এড়াতে অনতিবিলম্বে দালালচক্রের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।