শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বন্দুকযুদ্ধ হলে কি পুলিশ বন্দুক ফেলে পালিয়ে আসবে, প্রশ্ন আইজিপির লেখক মুশতাকের মৃত্যু না পরিকল্পিত হত্যা : নিরপেক্ষ বিভাগীয় তদন্তের দাবি পরকীয়ায় আসক্ত স্বামীকে স্ত্রীর কাছে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ ‘দালালের কাছে যাবেন না, তাতে প্রতারিত হবেন’: গণশুনানিতে বিআরটিএ চেয়ারম্যান ৩০ পৌরসভায় ভোটের দিন থাকছে না সাধারণ ছুটি যে কারণে সৈয়দ আবুল মকসুদ দুই খণ্ড সেলাই ছাড়া সাদা চাদর পরতেন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে ‘কমিশন বাণিজ্যের ধারা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে’ আসন্ন কায়েতপারা ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে জাহেদ আলীর পক্ষে জনসভা মাসের পর মাস মেয়েকে নির্যাতন, কারাগারে বাবা আজ অমর একুশে, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

বিশ্বের এমন ১০টি ‘সেক্স সিনেমা’, যা দেখলে পড়বে না চোখের পাতা

হলিউড হোক, কিংবা বলিউড- চলচ্চিত্র অঙ্গনে যৌনতাকে কেন্দ্র করে প্রচুর ছবি আগেও নির্মাণ হয়েছে। কিন্তু এমন ১০টি সিনেমা আছে যা দেখতে শুরু করলে চোখের পাতা এক করা যাবে না। এক ঝলকে সিনেমাগুলোর নাম ও কাহিনী সংক্ষেপ জেনে নিন। সময় পেলে দেখেও নিতে পারেন সিনেমাগুলো।

ওয়াইল্ড অর্কিড
১৯৮৯ সালের মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবিটির মূল থিম যৌন উত্তেজনা। জালমান কিং পরিচালিত এই ছবিটির সিক্যুয়েলও নির্মাণ হয় ১৯৯২ সালে।

মনস্টার বল
২০০১ সালে জার্মান-সুইস পরিচালক মার্ক ফরস্টার পরিচালিত মার্কিন আবেদনের এই ছবিটি মুক্তি পায়। মূল চরিত্রে অভিনয় করে একাডেমি পুরষ্কার পান বেরি।

কসমিক সেক্স
কলকাতায় নির্মিত বাংলা চলচ্চিত্রটির পরিচালক অমিতাভ চক্রবর্তী। ছবিটিতে যৌনতা এবং আধ্যাত্মিকতার মধ্যে একধরণের সংযোগের বিষয় দেখানো হয়েছে। হিন্দু দেহতত্ত্বের প্রভাব রয়েছে যা প্রান্তিক পুরুষ এবং নারীদের মধ্যে আজও চর্চা হয়ে আসছে। ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটি কেরালা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হয়।

ব্লু ইজ দ্য ওয়ারমেস্ট কালার
ফরাসি পরিচালক আব্দুল্লাতিফ কাশিশ পরিচালিত একটি রোমান্টিক ঘরানার ছবি ব্লু ইজ দ্য ওয়ারমেস্ট কালার। ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটি ‘কান চলচ্চিত্র উৎসবে’ পুরস্কার পায়। চলচ্চিত্রটি সমালোচকদের প্রশংসা পাওয়ার পাশাপাশি শ্রেষ্ঠ বিদেশী ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের জন্যে এবং বিএএফটিএ পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ বিদেশী ভাষার চলচ্চিত্র হিসেবে মনোনীত হয়েছে। অনেক সমালোচক একে ২০১৩ সালের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসেবে ঘোষনা করেন।

টারজান, দ্য এইপ ম্যান
অ্যাডভেঞ্চার ভিত্তিক এই ছবিটির পরিচালক জন ডেরেক। ‘টারজান অফ দ্য এইপসে’র গল্প অবলম্বনে ১৯৮১ সালে মুক্তি পায় ছবিটি। সিনেমাটি বক্স অফিসেও যথেষ্ট খ্যাতি পেয়েছিল।

দ্য আউট ল
এটি একটি আমেরিকান ছবি যাতে একজন অভিনেত্রীর সেক্স সিম্বল হয়ে ওঠার কাহিনী দেখানো হয়েছে। সিনেমাটি মুক্তি পায় ১৯৪৩ সালে।

বডি অফ এভিডেন্স
একটি যৌনবেদনাময়ী রোমাঞ্চকর সিনেমা হল এটি। পরিচালনা করেন উলি এদেল। তবে এই সিনেমাটি বক্স অফিসে তেমন সাড়া জাগাতে পারেনি।

টিম আমেরিকা
ট্রে পার্কার পরিচালিত আমেরিকান অ্যাকশন কমেডি ঘরানার ছবিটি মুক্তি পায় ২০০৪ সালে।

শেম
২০১১ সালে এই ব্রিটিশ ড্রামা ফিল্মটি মুক্তি পায়। স্টিভ ম্যাকুয়্যেন পরিচালিত ছবিটি বক্স অফিসে প্রচুর প্রশংসিত হয়। সিনেমাটির বেশ কিছু অংশে রয়েছে যৌন উত্তেজক দৃশ্য।

কিডস
ল্যারি ক্লার্কের পরিচালনায় কিশোর ড্রামা এই ছবিটি ১৯৯৫ সালে মুক্তি পায়। নিউ ইয়র্ক শহরের কয়েকজন কিশোরের যৌন উদ্দীপনাকে নিয়ে বানানো হয়েছিল ছবিটি।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বাংলার খবর মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com